মাছের চামড়ায় তৈরি হচ্ছে জুতা ও ব্যাগ

মেক্সিকোতে পরিবেশবান্ধব উপায়ে মাছের চামড়া নিয়ে কাজ করতে একটি প্রকল্প শুরু হয়েছে। এতে উদ্ভাবন হয়েছে নতুন এক শিপ্লের। অন্য চামড়ার পরিবর্তে মাছের চামড়া দিয়ে জুতাসহ বেশ কিছু পণ্য তৈরি করছেন কারিগররা।

প্রোটিনের উৎস থাকায় তেলাপিয়া চাষ বেশ জনপ্রিয়। খাবারের জন্য মাছ প্রক্রিয়াজাতের সময় মাছের অনেক চামড়া ফেলে দেয়া হয়। কিন্তু সিউদাদ ভ্যালীতে ঐতিহ্যবাহী প্রক্রিয়ায় এসব চামড়া দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে নতুন পণ্য। কম্পেটিটিভ অ্যাপ্লাইড ইনোভেশন এন্ড টেকনোলজি সেন্টারে তেলাপিয়া মাছের চামড়া প্রক্রিয়াজাত করে রঙ করা হয়।

সিআইএটিইসি এর প্রধান গবেষক বলেন ইয়োলান দা নিয়েতো,”এই প্রকল্পের মূল লক্ষ্য মাছ চাষের বর্জ্যকে কাজে লাগানো। প্রথমত, এর মাধ্যমে মাছের চামড়া পঁচে যে পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে তার খেয়াল রাখছি। দ্বিতীয়ত, কারিগররা পণ্য তৈরি করে তা ভাল দামে বিক্রি করতে পারবে।”

এই প্রকল্পের মাধ্যমে মাছের চামড়া ব্যবহারে বেশ খুশি মাছ চাষিরা।

মাছের খামার মালিক জুয়ান ক্যাস্তিল্লো বলেন,”আমাদের প্রধান অগ্রাধিকার অল্প খরচে বেশি মাছ তৈরি করা। এছাড়া এখন তেলাপিয়ার চামড়া সংস্কার করে তা দিয়ে মানিব্যাগ, জুতা এবং বিভিন্ন জিনিস তৈরি করে বিক্রি করা যাচ্ছে।”

গবেষকদের দাবি, চামড়াগুলো প্রক্রিয়াজাত করার পর এগুলো বেশ নরম ও টেকসই হয়। যা দিয়ে তৈরি করা যায় জুতা, ব্যাগ, চাবির রিংসহ আরও অনেক কিছু।

জুতা প্রস্তুতকারী ফ্রান্সিসকো রেয়েস বলেন,”আমি বিশ্বাস করি এটা খুবই ভাল, কারণ এটা খুবই বিশেষ এবং কাজ করার জন্য এটা খুবই রঙিন। আমার মনে হয় এর ভবিষ্যৎ ভাল।”

আকারে ছোট হওয়ায় স্যান্ডেল তৈরির জন্য মাছের চামড়া বেশি কার্যকর বলে মনে করেন স্থানীয় জুতা প্রস্তুতকারীরা। ছোট পণ্যে সাফল্যের পর এখন মাছের চামড়া একসাথে সেলাই করে জ্যাকেটের মতো বড় পণ্য তৈরির জন্য উপযোগী করে তুলছে গবেষণা চলছে।

Facebook Comments
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •