সিনেমা নয় ,বাস্তবেই প্রতারণার সম্মুখীন শ্রীলেখা

একটি পরিচিত নন-ব্যাংকিং ফিনান্সিয়াল সংস্থার বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ তুলেছেন অভিনেত্রী৷জালিয়াতির ফাঁদে পড়লেন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র।  শনিবারই কসবা থানায় এ নিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন টলিপাড়ার অভিনেত্রী৷

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই সংস্থাটি থেকে বেশ কয়েক বছর আগে ঋণ পরিষেবা নিয়েছিলেন শ্রীলেখা৷ তাঁর নামে একটি ইএমআই কার্ডও ইস্যু করেছিল কোম্পানিটি৷ সময় মতো সেই ঋণও শোধ করে দেন তিনি৷ কিন্তু তারপর গত বছরের মাঝামাঝি সময় থেকে ঋণ পরিষেবার নামে ইএমআই হিসেবে মাসে ৬ হাজার টাকা করে কাটতে শুরু করে। এইভাবেই সেই ইএমআই কার্ড দিয়ে ১ লক্ষ ১৮ হাজার টাকার পরিষেবা নেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ।

শ্রীলেখার অভি‌যোগ, ইএমআই নেওয়ার জন্য তিনি যে সমস্ত নথি জমা করেছিলেন, সেখান থেকেই তাঁর সই জাল করা হয়েছে। ফলে অনায়াসেই EMI কার্ড দিয়ে ১ লক্ষ ১৮ হাজার টাকার পরিষেবা নেওয়া হয়েছে। সংস্থার কোনও কর্মীই এ কাজ করেছেন বলে অনুমান তাঁর। অভিনেত্রী বলছেন, টাকা কাটলে মোবাইলে মেসেজ আসে ঠিকই। কিন্তু সবসময় মেসেজ দেখা হয় না। ফলে বিষয়টা প্রথমে নজরে পড়েনি তাঁর। সম্প্রতি বিষয়টি চোখে পড়তেই দেখেন, মোটা অঙ্কের অর্থের জালিয়াতি হয়েছে তাঁর সঙ্গে। ঋণ প্রদানকারী সংস্থাটি থেকে তিনি পার্লার-সহ বিভিন্ন ধরনের পরিষেবা নিয়ে থাকেন। ওই সংস্থাকে বিষয়টি জানালে তারা শ্রীলেখাকে একটি চেক দিয়ে দিয়েছে বলে খবর। যদিও সেই চেকটি এখনও জমা করেননি অভিনেত্রী। এমন ঘটনায় বেশ উদ্বিগ্ন তিনি৷ তবে ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্তের আশ্বাস দিয়েছে পুলিশ৷ ইতিমধ্যেই বিষয়টি খতিয়ে দেখতে শুরু করেছে কসবা থানার পুলিশ৷

Facebook Comments
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •